ঘোষনাঃ
সম্মানীত সদস্যবৃন্দ ! আপনাদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, সার্ভারে কারিগরি ত্রুটির কারনে সার্ভার মেরামতের কাজ চলছে৷ তাই এই সময়ে কেউ প্রশ্ন করবেন না এবং কোন প্রশ্নে উত্তর দিবেন না৷ দয়া করে অপেক্ষা করুন৷
Ask Answers এ আপনাকে স্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং সাইটের অন্যান্য সদস্যদের কাছ থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন
11 বার দেখা হয়েছে
"ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে করেছেন

1 টি উত্তর

0 জনের পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন
হূদ আঃ ছিলেন নূহ -এরই বংশধর। আদ জাতি ও ছামূদ জাতি ছিল নূহ -এর পরবর্তী বংশধর এবং নূহের পঞ্চম অথবা অষ্টম অধস্তন পুরুষ। ইরামপুত্র ‘আদ-এর বংশধরগণ ‘আদ ঊলা’ বা প্রথম ‘আদ এবং অপর পুত্রের সন্তান ছামূদ-এর বংশধরগণ ‘আদ ছানী বা দ্বিতীয় ‘আদ বলে খ্যাত।‘আদ ও ছামূদ উভয় গোত্রই ইরাম-এর দু’টি শাখা। সেকারণ ‘ইরাম’ কথাটি ‘আদ ও ছামূদ উভয় গোত্রের জন্য সমভাবে প্রযোজ্য। এজন্য কুরআনে কোথাও ‘আদ ঊলা’ (নাজম ৫০) এবং কোথাও ‘ইরাম যাতিল ‘ইমাদ’ (ফজর ৭) শব্দ ব্যবহৃত হয়েছে।

আদ সম্প্রদায়ের ১৩টি পরিবার বা গোত্র ছিল। আম্মান থেকে শুরু করে হাযারামাউত ও ইয়েমেন পর্যন্ত তাদের বসতি ছিল। উল্লেখ্য যে, নূহের প্লাবনের পরে এরাই সর্বপ্রথম মূর্তিপূজা শুরু করে।

হুদ এর জাতির নাম ছিল আ'দ। এটি আরবের প্রাথমিক যুগের একটি জাতি। বনি আদ গোত্রকে "আমালিকা" গোত্রও বলা হয়। খ্রিস্টপূর্ব আনুমানিক দুই হাজার বছর আগে ইয়েমেনের হাজরামাউত অঞ্চলে তাদের বসবাস ছিল বলে অনুমান করা হয়ে থাকে। দীর্ঘাকৃতি, দৈহিক শক্তি ও পাথর ছেদনশিল্পে তাদের বিশেষ খ্যাতি ছিল। কালক্রমে তারা কুসংস্কারাচ্ছন্নতা ও মূর্তি পূজার লিপ্ত হয়ে পড়ে। দৈহিক শক্তির কারণেও তারা বিভিন্ন অত্যাচার ও উচ্ছৃঙ্খলতায় লিপ্ত হয়। এই পরিস্থিতিতে আল্লাহ হুদ -কে তাদের উদ্দেশ্যে পাঠান, আল্লাহর শোকর গোজার ও সৎ কাজের আহবান দেওয়ার জন্য। কিন্তু তাদের সামান্য কিছু ছাড়া বাকি সবাই তাঁকে প্রত্যাখ্যান করল। এ অবস্থায় আল্লাহর শাস্তি তাদের ওপর নেমে আসতে লাগল। প্রথমে তারা দীর্ঘস্থায়ী খরার কবলে পড়ল। হুদ তাদের বললেন, এর মাধ্যমে আল্লাহ তায়ালার পক্ষ থেকে তোমাদের সতর্ক করা হচ্ছে। কিন্তু অত্যাচারী এ জাতির ওপর তাঁর উপদেশের কোনো আসর হলো না। তারা কুফর, শিরক ও উচ্ছৃঙ্খলতার পথেই এগিয়ে চলল। পরিশেষে তাদের প্রতি প্রচণ্ড ঝড়ঝঞ্ঝা পাঠানো হলো। এই শাস্তি একাধারে আট দিন তাদের ওপর প্রবাহিত হলো এবং এভাবে সেই আ'দ জাতি ধ্বংস হয়ে গেল। এ জাতির ধ্বংসের ঘটনা কোরআন মজিদের আরো অনেক সুরায় আলোচিত হয়েছে।
করেছেন
আপনি কি কপি করছেন উইকিপিডিয়া থেকে?

এরকম আরও কিছু প্রশ্ন

1 টি উত্তর
24 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তুষার
1 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
1 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
1 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
0 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
0 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
1 টি উত্তর
24 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তুষার
1 টি উত্তর
24 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তুষার
1 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
1 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
1 টি উত্তর
24 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
0 টি উত্তর
24 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
1 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
1 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা
1 টি উত্তর
23 ফেব্রুয়ারি "ইসলামের ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানহা

15,503 টি প্রশ্ন

15,432 টি উত্তর

489 টি মন্তব্য

719 জন সদস্য

Ask Answers সাইটে আপনাকে সুস্বাগতম! এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করতে পারবেন ৷ আর অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে অবদান রাখতে পারবেন ৷
12 জন অনলাইনে আছেন
0 জন সদস্য, 12 জন অতিথি
  1. তানহা

    542 পয়েন্ট

    102 টি উত্তর

    32 টি গ্রশ্ন

  2. Sharif45

    465 পয়েন্ট

    86 টি উত্তর

    34 টি গ্রশ্ন

  3. Mohammad Sayem

    460 পয়েন্ট

    80 টি উত্তর

    60 টি গ্রশ্ন

  4. Md.Sabbir

    341 পয়েন্ট

    53 টি উত্তর

    76 টি গ্রশ্ন

  5. Md.Suny

    218 পয়েন্ট

    19 টি উত্তর

    123 টি গ্রশ্ন

এখানে প্রকাশিত প্রশ্ন ও উত্তরের দায়ভার কেবল সংশ্লিষ্ট প্রশ্নকর্তা ও উত্তর দানকারীর৷ কোনপ্রকার আইনি সমস্যা Ask Answers বহন করবে না৷
...